কিভাবে শুরু করবেন ব্যাংকে চাকুরি পাবার প্রস্তুতি!

0
3710
ব্যাংকে চাকুরি পাবার প্রস্তুতি
Print Friendly, PDF & Email

আমার এই লিখার পেছনে কিছু কারণ নিহিত আছে এবং কিছু দুঃখ ও বিদ্যমান। ভাগ্যক্রমে আমার একটি ইউনিভার্সিটি লেভেল এর ইনস্টিটিউটে পড়ানোর সুযোগ হয়েছিল যেখানে আমিও বিবিএ পড়েছিলাম।

যখন শুনি আমার প্রিয় ছাত্র ছাত্রীরা কোন ভাল চাকরি পাচ্ছে না তখন খুব খারাপ লাগে আর নিজেকে অনেক ছোট মনে হয়। ছোট মনে হয় এই জন্যে যে, আমি যদি ওদের আরও বেশি বেশি বলতাম কিভাবে ব্যাংক জবের প্রস্তুতি নিতে হবে তাহলে বোধ হয় এমনটা হতো না।

আমাদের দেশ এবং দেশের অর্থনীতি দুটোই অনেক ছোট কিন্তু সেই তুলনায় জনসংখ্যা অনেক বেশি হওয়ায় বেকারত্বের হার অনেক বেশি। প্রতিবছর লক্ষাধিক ছাত্র ছাত্রী তাদের উচ্চ শিক্ষা শেষ করে চাকুরি বাজারে পদার্পণ করে। আমি চাকুরি বাজার বলছি এই জন্যে যে প্রায় প্রতিটি ভাল চাকুরির জন্যে লক্ষাধিক শিক্ষার্থী প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে থাকে। এসব পরীক্ষায় অধিকাংশও পরীক্ষার্থীই প্রস্তুতি না নিয়ে অংশগ্রহন করে থাকে। ফলে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারে না আর ২/৪ টি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেই হতাশার বৃত্তে ঘুরপাক খেতে থাকে।

আমি আমার বন্ধুমহলে এমন অনেকজনকে দেখেছি যাদের একাডেমিক রেজাল্ট অনেক ভাল কিন্তু সে তুলনায় ভাল চাকুরি পায় নি আর তার একমাত্র কারন চাকুরি বাজারের জন্যে নিজেকে যথাযথভাবে সময়মত প্রস্তুত না করা।

অনেকের ধারনা লোক না থাকলে বোধ হয় ব্যাংক বা অন্য কোন ভাল প্রতিষ্ঠানে চাকুরি পাওয়া যায় না। তাদের এই ধারনাটা সম্পূর্ণ ভুল। আমার দেখা প্রায় ১০/১২ জন আছে যারা তাদের নিজের যোগ্যতায় ব্যাংকে চাকুরি পেয়েছে।

আমি নিজে পর্যালোচনা করে দেখেছি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই চাকুরি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীরা জানেন না কিভাবে প্রস্তুতি নিতে হয় বা প্রস্তুতি শুরু করতে হয়। আরও একটি সমস্যা হল অনেক শিক্ষার্থী চিন্তা করে অনার্স বা মাস্টার্স পরীক্ষা শেষ করে প্রস্তুতি শুরু করবে। আমি বলব এটি অন্যতম এবং প্রধানতম কারন চাকুরি না পাওয়ার বা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হবার।

প্রস্তুতি নেয়ার উপায় ও কিছু কৌশলঃ

যারা বিবিএ/এমবিএ করছেন তাদের প্রায় প্রত্যেকের স্বপ্ন ব্যাংকার হবার। এর পেছনে অন্যতম কারন আকর্ষণীয় বেতন। ব্যাংক ও কিছু বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান ছাড়া চাকুরির শুরুতে এত ভাল বেতন কেউ প্রদান করে না। আমি আমার এই লেখায় যারা এখন  বিবিএ/এমবিএ করছেন তাদের জন্য কিছু সাজেশন বা প্রস্তুতির উপায় বলার প্রয়াস দেখিয়েছি। আশা করি কিছুটা হলেও উপকারে আসবেঃ

১) সবার আগে জানতে হবে ব্যাংকে কি ধরনের প্রশ্ন হয়। এর জন্যে বাজারে বেশ কিছু ব্যাংক জব প্রশ্নের সমাধান বই পাওয়া যায়। এসব বই থেকে সাম্প্রতিক প্রশ্নগুলো দেখলে একটি পরিষ্কার ধারনা পাওয়া যাবে।

২) একটু খেয়াল করলেই দেখা যাবে প্রায় সব ব্যাংকের প্রশ্ন একই ধরনের হয়।

৩) সাধারনত বহু নির্বাচনী প্রশ্ন বা MCQ এবং লিখিত এই দুই ভাগে প্রশ্ন হয়ে থাকে।

৪) MCQ ভাগে পাশ করতে না পারলে পরের অংশের খাতা দেখা হয় না।

৫) MCQ অংশে ইংরেজি, অংক ও সাধারন জ্ঞান এই তিন ধরনের প্রশ্ন হয়। অবশ্য সাম্প্রতিক কিছু প্রশ্ন যাচাই করে দেখা গেছে কম্পিউটার সম্বন্ধিত কিছু প্রশ্ন থাকে।

৬) আর লিখিত অংশে অনুবাদ, অনুচ্ছেদ (Paragraph), বড় অংক ইত্যাদি থাকে।

৭) Analytical Ability সম্বন্ধিত কিছু প্রশ্নও থাকে ব্যাংকের পরীক্ষাগুলোতে।

How to Prepare for Bank Exams
ছবিঃ freedigitalphotos.net

কিভাবে প্রুস্তুতি নেয়া শুরু করবেন ও যা যা সহায়ক হবেঃ

যারা এখন অনার্স ৩য় বা ৪র্থ বর্ষে আছেন তাদের উদ্দেশ্যে বলব যদি ব্যাংকে চাকুরি করার ইচ্ছা থাকে তাহলে সময় নষ্ট না করে এখনি পড়াশুনা শুরু করে দিন। আর কিভাবে শুরু করা যায় এর জন্যে বলবঃ

১) S@ifur’s অথবা Professor’s এর Math এবং Bank Job Solution এই বই দুটি কিনে পড়া শুরু করে দিন।

২) প্রতিদিন যা কিছুই হোক অন্তত ১০ টি Math শেষ করব মনে মনে এমন সংকল্প করুন।

৩) বেশিরভাগ পরীক্ষার্থীর English অংশে দুর্বলতা থাকে। এই জন্যে বাজারে বেশ কিছু English for Job বই পাওয়া যায়।

৪) English অংশে Vocabulary এর ভাল দখল থাকতে হবে আর এর জন্যে আমি বলব S@ifur’s এর Vocabulary বইটি কিনে ফেলুন এবং প্রতিদিন অন্তত ১০ টি Word মুখস্ত করুন।

৫) প্রতি মাসের ১ তারিখে কারেন্ট এ্যাফেয়ার্স কেনার অভ্যাস করুন। বাজারে ২/৩ ধরনের এ্যাফেয়ার্স পাওয়া যায়। এসব থেকে অন্তত ২ টি বই প্রতিমাসে কিনে  সারা মাসে কমপক্ষে ৩ বার পড়ে শেষ করেন। এইভাবে ২/৩ মাস পড়ার পর দেখবেন TV/Facebook থেকে এটি পড়তে বেশি ভাল লাগছে।

৬) সাধারন জ্ঞান এর প্রস্তুতির জন্যে আজকের বিশ্ব নামে একটি বই পাওয়া যায়, যত তাড়াতাড়ি পারেন বইটি কিনে পড়া শুরু করেন।

৭) Analytical Ability অংশের জন্যে S@ifur’s ও Professior’s এর কিছু বই পাওয়া যায়।

৮) এইভাবে ৬/৭ মাস প্রস্তুতি নেয়ার পর Bank Job Solution থেকে বিগত কিছু সালের প্রশ্ন সমাধান করার চেষ্টা করেন। অনার্স/মাস্টার্স পরীক্ষা শেষ হলে যদি সম্ভব হয় Coaching এ ভর্তি হয়ে মনোযোগ সহকারে পড়াশুনা করুন।

আমার লেখালেখির অভ্যাস একেবারেই নেই তাই অনেক ভুলভ্রান্তি থাকতে পারে আশা করব আপনারা এটিকে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। ইনশাআল্লাহ্‌ আপনারা সবাই ভাল চাকুরি পাবেন। আপনাদের সবার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করি। ধন্যবাদ!!

লিখেছেনঃ মোহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম (সুমন)

BangalianaMagazine.com

আরও জানুন » কৃত্রিম কিডনি ফিরিয়ে দেবে প্রাণ »

 

Comments

comments