ক্ষতিকারক রোদ থেকে বাঁচার সহজ কয়েকটি কৌশল

0
756
Print Friendly, PDF & Email

আমদের সুন্দর ত্বকের জন্য সবথেকে খারাপ সময় এর একটি হল গরম কাল । এই সময় রোদের প্রখরতা থাকে প্রচুর বেশি । বাতাসে আদ্রতা থাকে কম । আদ্রতা কম থাকার কারনে আমাদের ত্বক হয়ে ওঠে রুক্ষ । অনেক সময় অতিরিক্ত রোদের ফলে আমাদের ত্বকে এক প্রকার পোড়া দাগ পড়ে । একেক ধরণের ত্বকের অধিকারী প্রায় প্রত্যেকেই বিভিন্ন সমস্যায় পড়েন এই সময়টাতে । এই সময় না চাইতেও প্রয়োজন ত্বকের একটু বাড়তি যত্ন । তাই আজ আপনাদের জন্য রইল ত্বককে গরম থেকে সুরক্ষিত রাখার কিছু উপায় । আশা করি এই নিয়ম গুলো মেনে চলে কিছুটা হলেও উপকৃত হবেন ।

যতটুকু সম্ভব রোদকে এড়িয়ে চলুনঃ কাজ করার জন্য না চাইতেও আমাদের ঘর থেকে বের হতেই হয় , তাই এর মধ্যেই আমাদের চেষ্টা করতে হবে যতটা সম্ভব রোদকে এড়িয়ে চলা । তাই চেষ্টা করুন একটি সঠিক সময় নির্বাচন করতে বাসা থেকে বের হবার জন্য যখন রোদের প্রখরতা একটু কম থাকে । পারলে বের হবার সময় ছাতি নিয়ে বের হবেন।

সানস্ক্রিন ব্যবহার করুনঃ গরমের সময় ত্বকে সানস্ক্রিন লাগানো অনেক দরকারি । সানস্ক্রিন আপনার ত্বকে রোদের অতিবেগুনি রশ্মি থেকে রখা করবে । তাই ত্বকে ভাল এবং উন্নতমানের সানস্ক্রিন ব্যবহার করা উচিত । আর বাইরে বের হওয়ার অন্তত২০মিনিট আগে সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন৷

ত্বকের স্বাভাবিক আদ্রতা ঠিক রাখুনঃ গরম কালে ত্বকের আদ্রতা অনেক কমে যায় এবং ত্বক অনেক রুক্ষ দেখা যায় । তাই আমদের ত্বকের সঠিক আদ্রতা বজায় রাখার জন্য প্রচুর পানি পান করা উচিত, বেশি বেশি পানি জাতীয় খাবার এবং ফলমূল খাওয়া উচিত । এতে করে ত্বকের আদ্রতা সঠিক থাকবে এবং ত্বকের উজ্জলতা বজায় থাকবে।

ব্যবহার করুন সহজ ফেইস প্যাকঃ প্রথমে একটি বাটিতে ২ টেবিল চামচ ঠাণ্ডা টকদই, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস ও ১ টেবিল চামচ মধু নিন এবং ভাল করে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন । এবার মিশ্রণটি আপনার মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন । পরে ত্বক ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন । কাজ থেকে বাসায় ফিরে পারলে প্রতি দিন এই ফেইস প্যাকটি ব্যবহার করুন । লক্ষ্য করবেন সারাদিন আপনার ত্বকের যেটুক ক্ষতি হয়েছে তা পূরণ হয়ে যাবে ।

আরও জানুন » কৃত্রিম ডিমে ছেয়ে গেছে বাংলাদেশের বাজার যা মানব দেহের জন্য মারাত্বক ক্ষতিকর »

বিঃ দ্রঃ লেখাটি কোনরকম পরিমার্জন ব্যতিরেকে সম্পুর্ণ লেখকের ভাষায় প্রকাশিত হল। লেখকের মতামত, তথ্য উপস্থাপন, চরিত্র এবং শব্দ-চয়ন সম্পুর্ণই লেখকের নিজস্ব । বাঙালিয়ানা Magazine প্রকাশিত কোন লেখা, ছবি, মন্তব্যের দায়দায়িত্ব বাঙালিয়ানা Magazine কর্তৃপক্ষ বহন করবে না।
লেখাটি আপনার কেমন লাগলো তা আমাদেরকে অবশ্যই জানাবেন। আপনার মতামত আমাদের কাছে খুবই মূল্যবান। আপনি যদি আপনার নিজের লেখা কবিতা, গল্প, প্রবন্ধ বা অন্য যেকোনো বিষয় বাঙালিয়ানা Magazine এ প্রকাশ করতে চান, তবে আমরা অত্যন্ত আনন্দের সাথে আপনার লেখা প্রকাশে সচেষ্ট হব । আগ্রহীদের এই ইমেইল ঠিকানায় bangalianamagazine@gmail.com যোগাযোগের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হল । Copy করা কোন লেখা পাঠাবেন না। আমরা অরাজনৈতিক, অসাম্প্রদায়িক এবং নিরপেক্ষ।

 

Comments

comments